চন্দন দিয়ে নিয়মিত পরিচর্যা করুন ত্বকের, জেনে নিন ঘরোয়া ফেস প্যাক বানানোর নিয়ম

   |  Updated: August 23, 2018 09:44 IST

Reddit
5 Sandalwood Benefits: From Tan Removal To Treating Acne
Highlights
  • ব্রণ, ব্ল্যাকহেড, কালো ছোপ- সাধারণ ত্বকের সমস্যা
  • আয়ুর্বেদে চন্দনের গুরুত্ব বহুমুখী
  • চন্দনে আছে বহু ঔষধিগুণ

ক্রমবর্ধমান দূষণ আর রোজের চাপের মধ্যে ভুলভাল খাওয়া দাওয়া- যার ফলে ত্বকের নানান সমস্যা তো লেগেই রয়েছে। চামড়ায় জ্বলুনি, ব্রণ, গাঢ় দাগ, এবং ব্ল্যাকহেডের সমস্যা তো বেশ সাধারণ।সাধারণত এই সমস্যাগুলি থেকে রেহাই পেতে 8 থেকে 9 ঘন্টার ভাল ঘুম, প্রচুর জল পান করা এবং আপনার দৈনন্দিন জীবনে সুস্থ খাবার খাওয়া- এসবই হচ্ছে মূল পন্থা। কিন্তু এটুকুই যথেষ্ট নয়।  কখনও কখনও কিছু অন্য সমাধানের পথও তৈরি রাখতেই হয়। স্যান্ডালউড বা চন্দনকাঠ এমনই এক আয়ুর্বেদিক প্রাকৃতিক উপাদান যা আপনার ত্বকের যত্ন নেয়। সাধারণত পাউডার হিসাবেই পাওয়া যায় এই সুগন্ধী উপাদানটি।  চন্দন কাঠে তেল বিভিন্ন চামড়া রোগের চিকিৎসার জন্য দারুণ কাজে দেয়।

জেনে নিন চন্দনের নানান উপকার:

1. ট্যান কমাতে সাহায্য করে

সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে নিজেকে বাঁচাতে চন্দন তেলখুবই উপকারী।

2. অ্যান্টি- প্রদাহী বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন

ব্রণ বা প্রদাহজনিত বৈশিষ্ট্য বা সূর্যের তাপে সৃষ্ট কোনও ধরনের জ্বলুনি কমাতে সাহায্য করে। চন্দন কাঠের তেল পোকামাকড়ের কামড় বা অন্য কোনো ত্বকের ক্ষতি থেকে বাঁচতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

3. ত্বকের অ্যালার্জি কমায়

চন্দন কাঠ স্কিন প্রোটিনের মাত্রা বাড়ায় যার ফলে ত্বকের যে কোনও ব্রেকআউট, অ্যালার্জি বা জ্বলুনি থেকেও রক্ষা করে। এটি আপনার ত্বকের নরম টিস্যুতে সংকোচনের সৃষ্টি করে এবং আপনার ত্বকের ছিদ্রকে শক্ত করে তোলে। এ কারণেই অনেকেই ফেসপ্যাকগুলিতে বা টোনারগুলিতে চন্দন কাঠ ব্যবহার করেন।

sandalwood paste

চন্দন কাঠ স্কিন প্রোটিনের মাত্রা বাড়ায়, ত্বকের সমস্যা থেকে আরাম দেয় 

4. অ্যান্টিসেপটিক হিসাবে ব্যবহৃত

স্যান্ডালউডে আছে অ্যান্টিসেপটিক উপাদান যা ব্রণ দাগ ইত্যাদি কমায়। ধুলো এবং ময়লা থেকে আপনার ত্বকে যে ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি পায়, মুখে দুধের সাথে চন্দন গুঁড়ো মিশিয়ে প্রয়োগ সত্যিই উপকার পেতে পারেন।

স্যান্ডালউড ফেস প্যাক বাড়িতেই বানানঃ

1. ব্রণ এবং ব্ল্যাকহেড অপসারণের জন্য

এক টেবিল চামচ চন্দন তেলে এক চিমটি হলুদ এবং কর্পূর মেশান। এই প্যাক সারা মুখে লাগান।  ব্রণ, দাগ এবং ব্ল্যাকহেডস থেকে মুক্তি পেতে সারারাত রেখে দিন মুখে। এছাড়া, 1 টেবিল চামচ চন্দনগুঁড়ো, 1 চা চামচ নারকেল তেল এবং সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে মুখে প্রয়োগ করতে পারেন, আধ ঘন্টা পর হালকা গরম জলে ধুয়ে নেবেন।

2. ত্বক নরম করার জন্য

আপনার মুখে চন্দন কাঠের তেল দিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করুন। সারারাত রেখে দিয়ে সকালে হালকা গরম জলে ধুয়ে নিন।

3. রোদে পোড়া চামড়ার জন্য

এক টেবিল চামচ শশার রস, এক টেবিল চামচ দই, এক চা চামচ মধু, আর সামান্য লেবুর রসে এক টেবিল চামচ চন্দনগুঁড়ো মিশিয়ে ফেস মাস্ক হিসেবে লাগান। প্রায় 15 মিনিট রেখে দিন। সূর্যের ট্যান কমাতে সাহায্য করতে এটি।

4. কালো ছোপ অপসারণ

1 টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়োর সাথে নারকেল তেল মেশান এবং আপনার সারা মুখে এটি ম্যাসাজ করুন। সারা রাত রেখে দিন। নিয়মিত ব্যবহারের সাথে সাথেই গাঢ় দাগগুলো কমে যাবে।

coconut oil

1 টেবিলচামচ চন্দন গুঁড়ো এবং নারকেল তেল মিশিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন
 

5. তৈলাক্ত ত্বকের জন্য

কয়েক ফোঁটা গোলাপ জলে চন্দনগুঁড়ো মিশিয়ে সারা মুখে লাগান। আধঘণ্টা রেখে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন।

চন্দনগুড়ো আপনার সৌন্দর্য এবং সুন্দর, পরিষ্কার ত্বকের জন্য সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপাদান।

Comments

খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
সৌন্দর্য
Advertisement