Durga Puja 2019: উত্তম-সুচিত্রা-‘সপ্তপদী’....আর ষোলআনা বাঙালিয়ানা পেটপুজো

মহালয়া থেকে একাদশী---বেলা বারোটা থেকে রাত বারোটা পর্যন্ত প্যান্ডেল হপিংয়ের (Durga Puja 2019) সঙ্গে যদি উত্তম-সুচিত্রা আর ডাব চিংড়ি, মাটন, চিকেন, চিংড়ির স্বাদু পদ পান, ব্যাপারটা কেমন হবে?

Upali Mukherjee  |  Updated: September 06, 2019 22:16 IST

Reddit
Celebrate This Puja With Saptapadi’s Bengali Cuisine With Intriguing Spices

Durga Puja 2019: উত্তম-সুচিত্রা-‘সপ্তপদী’....আর ষোলআনা বাঙালিয়ানা

মহালয়া থেকে একাদশী---বেলা বারোটা থেকে রাত বারোটা পর্যন্ত প্যান্ডেল হপিংয়ের (Durga Puja 2019) সঙ্গে যদি উত্তম-সুচিত্রা আর ডাব চিংড়ি, মাটন, চিকেন, চিংড়ির স্বাদু পদ পান, ব্যাপারটা কেমন হবে? আপনি কি গুণগুণ করে বলছেন নাকি?....'তুমিই বল'! এমনটা হওয়াই খুব স্বাভাবিক। কারণ, বাংলা এবং বাঙালির যা যা প্রিয় বরাবরই তা শহরবাসীর কাছে বিশেষ দিনে বিশেষ ক্ষণে উপহার দিয়ে আসছে সপ্তপদী রেস্তোরাঁ (Saptapadi)। নববর্ষে, মহানায়কের জন্মদিনে, পুজোয় রকমারি স্বাদু খাবার রেঁধে-বেড়ে যত্ন করে খাইয়ে (Bengali Cuisine)। এবছরেও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। ১৫ দিন ধরে কলকাতার সাবেকি খাবার নিয়ে টানা ১২ ঘণ্টা তিলোত্তমার রসনাতৃপ্তিতে হাজির এই অভিজাত রেস্তোরাঁ।

va73dc08



এখানে পা রাখলেই চোখ আটকাবে দেওয়ালজোড়া উত্তম-সুচিত্রার ছবিতে। ছবিতে যেন তাঁরা আরও জীবন্ত। দেখামাত্রই আপনি নস্টাল। সিঁড়ি বেয়ে উঠতে উঠতে নজরে আসবে ভালো ভালো খাবারের ছবি। যা একসময় প্রকাশিত হয়েছে জনপ্রিয় পত্রিকায়। রেস্তোরার গেটে সাজানো শোলার ঢাকি জানান দেবে পুজো এল বলে। আর ভেতরে পা রাখলে কথাই নেই। মহানায়ক-আর মহানায়িকার নজরবন্দি আপনি। অজস্র মন ভালো করা উত্তর-সুচিত্রার সাদা-কালো যুগের সেরা ছবি। চওড়া করে বাঁধানো সপ্তপদী ছবির সেই বাইকে চড়া বিশেষ মুহূর্তের ল্যামিনেশন, 'এই পথ যদি না শেষ হয়!' 

Weekend Special: বাড়িতেই হোক ভিয়েতনামি স্ট্রিট ফুড! ফো রাঁধুন এক ফুঁয়ে

সব দেখেশুনে যে প্রশ্ন ঠোঁটের ডগায় প্রথমে আসে তা হল, এবারের পুজো স্পেশ্যাল মেনু কী? রেস্তোরাঁর কর্ণধার এবং প্রধান শেফ রঞ্জন বিশ্বাসের কথায়, মহালয়া থেকে সপ্তপদী ভরপুর বাঙালিয়ানায়। মেনু হিসেবে থাকবে, দু-রকমের থালি। শারদীয়া থালি আর স্পেশ্যাল শারদীয়া থালি। শারদীয়া থালিতে পাওয়া যাবে, ভাত/পোলাও, ভাজা, সবজি, সোনালি ভেটকি ফ্রিটার্স, নারকেল মুরগি নাগেটস, মাটল, চিংড়ি, ভেটকি, স্যালাড, চাটনি, পাঁপড়। স্পেশ্যাল শারদীয়া থালিতে এই সব পদের সঙ্গে বাড়তি পাওনা ইলিশের একটি পদ। দু-রকম থালিই যথেষ্ট পকেট মানানসই। প্রথম থালি নিলে খরচ হবে সাড় আটশ টাকা। দ্বিতীয় থালির মূল্য প্রায় বারোশ টাকা।

h2ivnf08



এছাড়াও, পুজোর ক-দিন যাঁরা ঘোরতর নিরামিশাষী তাঁদের কথা মনে করে থাকবে পনীর, মা-দিদিমার আমলের শুক্তো, ঘি দেওয়া মুগের ডাল,পাঁচ রকম ভাজা, আলু-ফুলকপির ডালনা এবং আরও অনেক। আলাকার্ট মেনুতে থাকবে মরিচ পাবদা, মশালা, ডাব চিংড়ি, সুতানুটির ভূনা মুরগি-মাটন, পনীর সিমলামির্চ, শুক্তো, বাদশাহী কাতলা। নিভু নিভু আলোয় যখন আয়েশ করে জমিয়ে সপরিবারে, স-সঙ্গী বা স-সঙ্গিনী কিংবা একাই একান্তে বসবেন সপ্তপদীতে, আপনাকে সঙ্গ দেবে উত্তম-সুচিত্রার কোনোদিন পুরনো না হওয়া সেই সব গান, 'তুমি না হয় রহিতে কাছে!' যা আপনাকে মনে মনে বলতে বাধ্য করবে, 'এই ভোজ যদি না শেষ হয়....!'

Comments

খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
Advertisement