ডায়াবেটিকরা শীতে এই পাঁচটি মশলা ও ফল খাদ্য তালিকায় যোগ করুন অবিলম্বে

বিশেষত শীতকালে অনেক ফল, সবজি এবং মশলা পাওয়া যায় যা স্বাভাবিকভাবেই ডায়াবেটিস পরিচালনা করতে সাহায্য করে এবং রক্তে চিনির ওঠানামা নিয়ন্ত্রণ করে।

एनडीटीवी फूड डेस्क  |  Updated: December 26, 2018 15:52 IST

Reddit
Diabetes Management: include 5 Winter Foods and spices in your diet

বর্তমানে ডায়াবেটিস বিশ্বব্যাপী লক্ষ লক্ষ মানুষের স্বাস্থ্য সমস্যার অন্যতম জটিল অবস্থা। জার্নাল ল্যানসেট দ্বারা গৃহীত সর্বশেষ গবেষণায় বলা হচ্ছে যে, ২০৩০ সাল নাগাদ ৯৮ মিলিয়ন ভারতীয় ডায়াবেটিস আক্রান্ত হবেন। আপনার খাদ্যতালিকা ডায়াবেটিস পরিচালনার একটি মূল উপাদান। বিশেষত শীতকালে অনেক ফল, সবজি এবং মশলা পাওয়া যায় যা স্বাভাবিকভাবেই ডায়াবেটিস পরিচালনা করতে সাহায্য করে এবং রক্তের চিনির ওঠানামা নিয়ন্ত্রণ করে। এই শীতের মরশুমে আপনার খাবারের তালিকায় রাখুন এই মশলা সবজি ও ফল।

ডায়াবেটিকদের জন্য শীতকালীন খাবার:

1. পেয়ারা

এই শীতকালীন প্রিয় ফল ফাইবারের একটি সমৃদ্ধ ভাণ্ডার। ফাইবার ভাঙ্গতে এবং হজম হতে দীর্ঘ সময় নেয়, যার ফলে খাদ্য অবিলম্বে ভেঙে যায় না এবং রক্ত ​​শর্করা হঠাত করে বৃদ্ধি হওয়া প্রতিরোধ করে। পেয়ারা কম গ্লাইসেমিক সূচক যুক্ত। গ্লাইসেমিক ইনডেক্স (জিআই) ৫৫-এর নিচে এমন খাবার খেতে পরামর্শ দেওয়া হয় ডায়াবেটিকদের।

লিভারের রোগকে দূরে রাখুন সবুজ শাকসব্জি দিয়ে

2. দারুচিনি

আপনি কি জানেন দারুচিনি ডায়াবেটিস ডায়েটের একটি চমৎকার উপাদান? ডি কে পাবলিকেশন হাউসের হিলিং ফুডস বই অনুসারে, "দারুচিনি হ'ল একটি পাচক সাহায্য যা রক্তে গ্লুকোজ এবং ট্রাইগ্লিসারাইডের (এক ধরনের চর্বি) মাত্রা স্বাভাবিক করতে সহায়তা করে, ডায়াবেটিস এবং হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে।" ডায়াবেটিকদের জন্য দারুচিনি ব্যবহার করার সেরা উপায় হল সকালে দারুচিনি ভেজানো জল খাওয়া।

ktj8nkj

3. কমলালেবু

আমেরিকান ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশনের মতে, পাতিলেবু, কমলালেবুর মতো সাইট্রাস ফলগুলি 'ডায়াবেটিস সুপারফুডস', যা আপনার রক্তের শর্করার মাত্রা পরিচালনা করার জন্য ডায়েটে যোগ করা উচিত। কমলার গ্লাইসেমিক সূচকও কম আছে; আপনি স্যলাডে তাদের যোগ করতে পারেন, রস করে বা কাঁচাও খেতে পারেন।

4. গাজর

পুষ্টি-ঘন গাজর আপনার ডায়াবেটিস পরিচালনা করতে দুর্দান্ত সাহায্য করতে পারে। গাজরে ডায়েটরি ফাইবার থাকায় তা রক্ত ​​প্রবাহে চিনিকে ধীরে ধীরে মুক্তি দেয়। গাজরের গ্লাইসেমিক সূচক খুব কম।

bqlp76t

 

5. লবঙ্গ

লবঙ্গ অ্যান্টি-প্রদাহজনক, অ্যানালজেসিক এবং পাচক স্বাস্থ্যের উপকারি কিছু তেলে সমৃদ্ধ। এছাড়াও এই মশলা রক্ত ​​শর্করার ওঠানামা এবং ইনসুলিন উত্পাদনে যত্ন নেয়। জার্নাল ন্যাচারাল মেডিসিনে প্রকাশিত একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় জেনেটিক্যালি ডায়াবেটিক ইদুরে লবঙ্গের হাইপোগ্লাইসেমিক প্রভাবগুলি খতিয়ে দেখা হয়েছে। গবেষণায় জানা গেছে যে লবঙ্গের নির্যাস ইনসুলিনের স্রোত বৃদ্ধি করে এবং শরীরে ইনসুলিনের প্রতিক্রিয়া বাড়ায়।

Comments

খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
Advertisement