গ্রীষ্মে বাড়িতে মশলা চা বানালে এই তিনটি মশলা দিন শরীর ভালো রাখতে

গ্রীষ্মকালেও প্রাণ ভরে চা খাওয়ার জন্য চায়ে বিশেষ কয়েকটি মশলা মেশাতে পারেন যা পেট ভালো রাখবে এবং আপনার পছন্দের এই পানীয়কে স্বাস্থ্যকর করে তুলতে পারে। 

एनडीटीवी फूड डेस्क  |  Updated: April 04, 2019 16:37 IST

Reddit
Masala Tea: Summer Diet Tips: Add These 3 Spices To Your Chai To Stay Cool Naturally
Highlights
  • গ্রীষ্মে অত্যধিক মশলা চায়ে হজমের সমস্যা হয় অনেকের
  • গরমের উপযুক্ত মশলা দিন চায়ে
  • শরীর ঠাণ্ডা করে এমন মশলা মেশান

মশলা চায়ের একতা কাপ মন মেজাজ ভালো করে দেওয়ার সব মন্ত্র জানে। চা-প্রেমীরা এই দেশি ওষুধের উপর যুগে যুগে নির্ভরশীল থেকেছে। বিশ্বের বিভিন্ন ক্যাফে এবং রেস্তোরাঁয় তাই বিভিন্ন রকমের মশলা চা পাওয়া যায়। তবে, গ্রীষ্মকালে দুধ চা বা মশলা চা খেতে অনেকেই দু'বার ভাবেন, বিশেষ করে যাঁদের পাচন সমস্যা রয়েছে। চা গরম খাওয়া হয় বলে তা গ্যাস্ট্রিকের কারণ হতে পারে অথবা গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত পরিমাণে চা খেলে ডিহাইড্রেশন এবং মাথা ব্যাথাও হতে পারে।

চে প্রেমীরা সকাল আর বিকেল বিশেষ করে এই দু'টি সময় চা ছাড়া ভাবতেই পারে না। গ্রীষ্মকালেও প্রাণ ভরে চা খাওয়ার জন্য চায়ে বিশেষ কয়েকটি মশলা মেশাতে পারেন যা পেট ভালো রাখবে এবং আপনার পছন্দের এই পানীয়কে স্বাস্থ্যকর করে তুলতে পারে। 

উদ্বৃত্ত ভাত গরম করার ক্ষেত্রে সাবধান! ভ্রান্তি ডেকে আনতে পারে ডায়েরিয়া



oeqkp3k8

গ্রীষ্মকালীন ডায়েট টিপস: গ্রীষ্মকালে মশলা চা খাওয়ার কিছু উপায়

এখানে চায়ের সাথে যোগ করা যায় এমন তিনটি মশলা রইল যা গ্রীষ্মের মাথাব্যাথা এবং হজমের সমস্যা দূরে রাখতে পারে:

1. মৌরি

গ্রীষ্মকালে আপনার দুধ চায়ে মৌরি যোগ করুন। মৌরি স্বাভাবিকভাবেই ঠান্ডা। এটি গ্রীষ্মের সাধারণ হজমের সমস্যা যেমন, কোষ্ঠকাঠিন্য, পেট ফাঁপা এবং বদহজম দূরে রাখে। আয়ুর্বেদে বলে যে শরীরের উপর শীতল প্রভাব রয়েছে মৌরির এবং শরীরের তাপ স্বাভাবিকভাবেই উপশম বা হ্রাস করতে পারে এটি।

2. সবুজ এলাচ

অম্লতা গ্রীষ্মকালের খুব সাধারণ সমস্যা এবং সবুজ বা ছোটো এলাচ এই সমস্যা সমাধানে বেশ কাজে আসে। এলাচ অত্যধিক অ্যাসিড প্রতিহত করে। পেট ব্যথা উপশমেও কাজে আসে। 

বাঙালির চায়ের সঙ্গে টা-এর ‘সাতকাহন'



cardamom

গ্রীষ্মকালীন ডায়েট টিপস: এলাচ পেটের অত্যধিক অ্যাসিড কমাতে সাহায্য করে

3. হলুদ

হলুদ এই গ্রীষ্মে শরীর ঠান্ডা থাকতে সাহায্য করতে পারে। এই তিক্ত মসলা রক্তকে শুদ্ধ করে, প্রদাহের বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং দৈনন্দিন খাওয়া হলে শরীরের প্রচুর কাজে আসে। আপনি এই গ্রীষ্মে চায়ে সামান্য হলুদ গুঁড়ো জুড়তে পারেন যাতে এর স্বাদ এবং পুষ্টি প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পায়।

গ্রীষ্মের সময় অনেকেই মানসিক ও শারীরিক চাপে বেশি থাকেন, অনেকেই মনে করেন গরমে চা খেলে তা চাপ আরও বাড়াবে। দীর্ঘস্থায়ী অম্লতা এবং হজমের সমস্যা ভুগলে আপনার জন্য উপযুক্ত গ্রীষ্মকালীন খাদ্য সম্পর্কে আরো জানতে ডাক্তার বা পুষ্টিবিদদের সাথে পরামর্শ করুন।

Comments



খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
Advertisement