প্রতিদিনকার বেগুনের ভর্তার সঙ্গে যোগ করুন অতিরিক্ত প্রোটিন

ইউএসডিএ ডেটা অনুসারে, ১০০ গ্রাম কাঁচা সোয়াতে ৩৬ গ্রাম প্রোটিন থাকে

Edited by Sumana Chakraborty  |  Updated: March 04, 2020 13:08 IST

Reddit
Recipe Of Protein-Rich Diet: Add Some Soya Keema To Rich Your Baingan Bharta With Protein

Protein Rich Food Option: রোজকার বেগুন ভর্তা বা বেগুন পোড়া বানানোর সময় তাতে সোয়া কিমা মেশাতে ভুলবেন না

Highlights
  • সোয়া শুধু যে সুস্বাদু তা নয়, সেই সঙ্গে এরমধ্যে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাক
  • বাঙালিদের যেমন লম্বা বা গোল বেগুন ভাজা অতি প্রিয়
  • কিছু কিছু মানুষের বেগুনের থেকে এলার্জি থাকে

বেগুন, নাম শুনতেই বেগুন ভাজার কথা মনে পড়ে যায়। বাঙালিদের যেমন লম্বা বা গোল বেগুন ভাজা অতি প্রিয়, তেমনি উত্তর ভারতেও বিভিন্ন স্বাদে বেগুন খাওয়া হয় ও তা মানুষের প্রিয় খাদ্যের মধ্যে অন্যতম। কিছু কিছু মানুষের বেগুনের থেকে এলার্জি থাকে, তারা নিজেদের খাদ্য তালিকা থেকে বেগুন দূরে রাখলেও বাকি প্রায় সকলের কাছেই বেগুন অতি প্রিয়। বেগুন ভাজা থেকে বেগুন পোড়া, প্রায় সকলেই খেতে ভালোবাসেন। তবে এই বেগুন পোড়া আবার কাউর কাউর কাছে বেগুনের ভর্তা নামে পরিচিত।  ঝাল ঝাল, বেগুন পোড়ার সঙ্গে যদি একটু সোয়া কিমা মিশিয়ে নেওয়া যায়, তাহলে একদিকে যেমন তার স্বাদ বৃদ্ধি পায়, তেমনি সেই সঙ্গে পাওয়ায় যায় অতিরিক্ত প্রোটিন। আজি সহজেই বানিয়ে ফেলুন নতুন স্বাদের বেগুন পোড়া।  

সোয়া শুধু যে সুস্বাদু তা নয়, সেই সঙ্গে এরমধ্যে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। ইউএসডিএ ডেটা অনুসারে, ১০০ গ্রাম কাঁচা সোয়াতে ৩৬ গ্রাম প্রোটিন থাকে। সেই সোয়া যদি বেগুনের সঙ্গে মিশে যায়, তাহলে আপনার খাবার আরও সুস্বাদু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাতে এন্টিঅক্সিডেন্ট হিসাবে পটাসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা-ক্যারোটিন ও ফাইবার পাবেন। সুতরাং রোজকার বেগুন ভর্তা বা বেগুন পোড়া বানানোর সময় তাতে সোয়া কিমা মেশাতে ভুলবেন না।  তা আপনার খাদ্যকে যেমন সুস্বাদু করে তুলবে, সেই সঙ্গে তা হয়ে উঠবে প্রোটিনে ভরপুর ও পুষ্টিকর।  

দেখে নিন কীভাবে বানাবেন বেগুন সোয়া ভর্তা 

উপাদান: 

বেগুন - ১ টা 

সোয়া কিমা - এক কাপ 

টমেটো - ২ টো 

পেঁয়াজ - ১ টা বা ২ টো (খুব ভালো করে কোঁচানো) 

কাঁচা লঙ্কা - ২ টি (ভালো করে কোঁচানো)

আদা - এক চামচ (ভালো করে কোঁচানো)

রসুন - এক চামচ (ভালো করে কোঁচানো)

তাজা ধনে পাতা - দুই চামচ (ভালো করে কোঁচানো)

কাশ্মীরি রেড চিলি পাউডার - এক চা চামচ (রঙের জন্য)

হলুদ গুঁড়ো - এক চা চামচ 

জিরের গুঁড়ো - এক চা চামচ 

গোটা জিরে - এক চা চামচ 

হিং - আধ চা চামচ 

শুকনো লঙ্কা - দুটো 

গরম মশলা গুঁড়ো - এক চা চামচ 

নুন - স্বাদানুসারে 

চিনি - স্বাদানুসারে 

সর্ষের তেল  

বানানোর পদ্ধতি: 

বেগুন টা মধ্যখান দিয়ে চিরে নিন। ভালো করে সর্ষের তেল লাগিয়ে ওভেনে পুড়িয়ে নিন।  

 টমেটোতেও তেল বুলিয়ে নিন ও তাও ওভেনে দিয়ে ঝলসে নিন।

বেগুন ও টমেটো নরম হয়ে এলে গ্যাস থেকে নামিয়ে নিন, খোসা ছাড়ান ও এক পাশে রেখে দিন। 

একটা পাত্রে জল দিয়ে তাতে নুন দিন ও  গরম হতে দিন। 

গ্যাস বন্ধ করে তাতে সোয়াবিন কিমা ঢেলে দিন, পাঁচ  মিনিট গরম জলে ভিজিয়ে রাখুন, নরম হয়ে গেলে জল ঝরিয়ে তুলে নিন।  

এক কড়াই গ্যাসে বসিয়ে তাতে সর্ষের তেল দিন।  তেল গরম হতে দিন। 

গরম তেলে একে একে হিং, শুকনো লঙ্কা, গোটা জিরে দিয়ে ভেজে নিন।  

ভাজা মশলার গন্ধ বেরানোর পর তেলের মধ্যে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন, হালকা সোনালী করে ভেজে নিন।  

এবার তেলে আদা, রসুন ও কাঁচা লঙ্কা দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন।  

এবার এর মধ্যে আগে থেকে পুড়িয়ে রাখা টমেটো ০ বেগুন মিশিয়ে দিন। 

এরপর হলুদ গুঁড়ো, নুন, চিনি, জিরের গুঁড়ো এবং কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো মিশিয়ে দিয়ে ভালো করে নাড়ান, যতক্ষণ না তেল ছাড়ছে। 

সবশেষে, গরম মশলা ও ধনেপাতা মিশিয়ে দিয়ে ঢাকা বন্ধ করুন।  

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com

যারা আমিষ খান তারা সোয়া কিমার বদলে চিকেন কিমাও  পারেন।  

আপনার তৈরি কিমা বেগুনের ভর্তা গরম গরম পরিবেশন করুন, রুটির সাথে।

Comments

খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
সৌন্দর্য
Advertisement