রান্নাঘর থেকেই শুরু হোক পৃথিবীকে ভালো রাখার প্রয়াস

২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড আর্থ ডে-র ৫০ বছর হল।

Sakshita Khosla  |  Updated: April 22, 2019 22:44 IST

Reddit
World Earth Day 2019: New Ways Of Making Your Kitchen More Greener
Highlights
  • আজ ওয়ার্ন্ড আর্থ ডে
  • রান্নাঘর থেকে সবুজায়নের সূচনা করতে পারেন
  • খাবার নষ্ট করবেন না

আজ ওয়ার্ল্ড আর্থ ডে (World Earth day) এ বছরের এই বিশেষ দিনে থিম ‘প্রোটেক্ট আওয়ার স্পিসিজ'। এই দিনে বিভিন্ন পরিবেশ সংক্রান্ত বিষয়ে সচেতনতা প্রসারের জন্য উদ্যোগ গৃহিত হয়। ১৯৭০ সালের ২২ এপ্রিল প্রথম বার ওয়ার্ল্ড আর্থ ডে পালিত হয়েছিল। পরিবেশের উপর ক্ষতিকর প্রভাব কে রোখার উদ্দেশ্যে এখন ১৯২টি দেশে এই দিনটি পালিত হয়। ২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড আর্থ ডে-র ৫০ বছর হল।

রান্না ঘর কে কিভাবে আরো পরিবেশ বন্ধু করে তুলবেন:

ছোট ছোট উদ্যোগ থেকেই বড় বড় পরিবর্তনের জন্ম হয়। আমরা যদি নিজেদের বাড়ি বিশেষ করে রান্নাঘরে পরিবেশ রক্ষার কর্তব্যটুকু নিজেদের কাঁধে তুলে নিই, তা হলে একদিন আরও বেশি বাসযোগ্য হয়ে উঠতে পারে পৃথিবী।

নিজে সবজি লান

রান্নাঘর লাগোয়া ছোট্ট একটি বাগান করে সেখানে প্রয়োজনীয় সবজি ফলানোর চেষ্টা করুন। এমন জায়গায় সবজির টব রাখবেন যাতে যাতে সেটি পর্যাপ্ত রোদ্দুর পায়। এ ভাবে আপনি রাসায়নিক মুক্ত জৈব খাবার পেতে পারেন।



ijn4v5vgজৈব ফলন ব্যবহার করুন রান্নায়



বুঝে ব্যবহার করুন যন্ত্র

বিদ্যুতের খরচ যতটা সম্ভব কমিয়ে আনুন। বিভিন্ন মেশিন পাওয়া যায় আজকাল যা সৌরশক্তিতেই ভালো ভাবে চলে এবং বিদ্যুতের অপচয় রোধ করে। খাবার বানানোর ক্ষেত্রে তেমন মেশিন ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

খাবার নষ্ট করবেন না

এক দিনে আপনারা যতটা খেতে পারবেন ততটুকুই রান্না করুন। অনেক সময় উদ্বৃত্ত খাবার পরের দিন রেখে দিলে তা নষ্ট হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে তা ফেলে দিতে হয়। তবে পচে যাওয়া খাবারকে ফেলে না দিয়ে সবজির গোড়ায় জৈব সার হিসেবে তা ব্যবহার করতে পারেন।

গ্যাস এবং জলের খরচ বাঁচান

ঢাকা দিয়ে রান্না করলে বা অকারণে বেশি জল খরচ না করলে আপনি পরিবেশ প্রতি নিজের দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

cpa3la4
উদ্বৃত্ত খাবার গাছের সার হিসাবে ব্যবহার করুন

শিকড় থেকে গোঁড়া অবধি রান্না

এই পদ্ধতিতে যে কোন শাক সবজির গোড়া থেকে শিকড় পর্যন্ত পুরোটাই রান্না করা যায় এবং গোটাটা কম গ্যাস খরচে ভালোভাবে সুসিদ্ধ হয়।

Comments

About Sakshita KhoslaSakshita loves the finer things in life including food, books and coffee, and is motivated by self-indulgence and her love for words. When not writing, she can be found huddled in the corner of a cosy cafe with a good book, caffeine and her own thoughts for company.

খাদ্য সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত টিপস, রেসিপি জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

Advertisement
Advertisement